এবার পুতিনকে গ্রেপ্তারের আহ্বান

লেখক: আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশ: ১ বছর আগে

জাতিসংঘের যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের এক সাবেক প্রধান প্রসিকিউটর ইউক্রেনে সামরিক আগ্রাসন চালানোর কারণে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে গ্রেপ্তারের আহ্বান জানিয়েছেন। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

জাতিসংঘের যুদ্ধাপরাধবিষয়ক ট্রাইব্যুনালের সাবেক এই প্রধান প্রসিকিউটরের নাম কার্লা দেল পন্টে। তিনি সুইজারল্যান্ডের নাগরিক।

পুতিনকে গ্রেপ্তারে দ্রুত পরোয়ানা জারির জন্য আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন কার্লা দেল পন্টে।
কার্লা দেল পন্টে বলেন, পুতিন ও অন্য জ্যেষ্ঠ রুশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা উচিত।

৭৫ বছর বয়সী এই সুইস নাগরিক বলেন, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার পূর্ণমাত্রায় আগ্রাসন শুরুর পর সে দেশে সংঘটিত যুদ্ধাপরাধের জন্য পুতিন ও উচ্চপর্যায়ের অন্য রুশ কর্মকর্তাদের জবাবদিহির আওতায় আনতে তাদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা দরকার।

সুইজারল্যান্ডের সংবাদপত্র লে টেম্পসকে কার্লা দেল পন্টে একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। তার সাক্ষাৎকারটি গতকাল শনিবার প্রকাশিত হয়। এতে তিনি বলেন, পুতিন একজন যুদ্ধাপরাধী।

কার্লা দেল পন্টে সাবেক যুগোস্লাভিয়া ও রুয়ান্ডার জন্য গঠিত জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রধান প্রসিকিউটরের দায়িত্ব পালন করেছেন।

ইউক্রেনে সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধের বিষয়ে গত মাসে তদন্ত শুরু হয়েছে। ইউক্রেনের বেসামরিক নাগরিকদের নিশানা করে রাশিয়ার বোমা হামলার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এ তদন্ত শুরু হয়।

আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) প্রধান প্রসিকিউটর যুক্তরাজ্যের নাগরিক করিম খান বলেছেন, যুদ্ধাপরাধ, মানবতাবিরোধী অপরাধ ও গণহত্যার অভিযোগের বিষয়ে তথ্য–প্রমাণ সংগ্রহ করা হচ্ছে।

তবে আইসিসির ক্ষমতার বাস্তবিক সীমাবদ্ধতা রয়েছে। কারণ, রাশিয়া এই আদালতের সদস্য নয়। তা ছাড়া তাত্ত্বিকভাবে রাশিয়া তার নিজ দেশের নাগরিকদের বিচারের মুখোমুখি হতে বিদেশে হস্তান্তর করে না।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গত মাসে রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনকে একজন ‘যুদ্ধাপরাধী’ হিসেবে অভিহিত করেছিলেন। প্রতিক্রিয়ায় ক্রেমলিন বলেছিল, বাইডেনের এ মন্তব্য ‘অমার্জনীয়’।

ডেস্ক/বিডি

  • পুতিনকে গ্রেফতার
  • রাশিয়া
  •    

    কপি করলে খবর আছে