কলকাতার দুটি পূজার প্রধান মুখ হচ্ছেন অপু বিশ্বাস

লেখক: বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশ: ৬ মাস আগে

দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস কলকাতায় নিজের প্রথম ছবি ‘আজকের শর্টকাট’-এর প্রচারণায় বেশ কয়েকদিন ব্যস্ত ছিলেন। করেছেন দু-একটি ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপন শ্যুটও। সেই ফাঁকেই পূজার শপিং খানিকটা সেরেছেন অপু। শাড়ি কিনেছেন নিজের জন্য। কিনেছেন পরিবার আর বন্ধু-বান্ধবদের উপহার দেয়ার জন্যও। এবার কলকাতার পূজার মুখও হচ্ছেন অপু বিশ্বাস। দুটি পূজার প্রধান মুখ হচ্ছেন অপু। একটি কাঁকুড়গাছি যুবকবৃন্দ এবং অপরটি দক্ষিণ ট্যাংরা শীতলা যুব সংঘ।

বিনা পারিশ্রমিকে এ কাজ করছেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর সম্প্রীতির বার্তা দিয়েই এ কাজে রাজি হওয়া-এমনটাই সময় সংবাদকে জানিয়েছেন অপু বিশ্বাস।

পশ্চিমবঙ্গে এসে তারাপীঠে মা কালীর পূজা দিয়ে এসেছেন অভিনেত্রী। ফেরার পথে ঘুরেছেন শান্তিনিকেতন। সেখান থেকে বেশকিছু খাদি শাড়ি কিনেছেন নিজের জন্য। সেখানকার হ্যান্ডমেড ব্যাগ এবং জুয়েলারিও কিনেছেন।

বাংলাদেশের ঢাকাই জামদানিতো পছন্দই। পছন্দ শিফন শাড়িও। তবে পূজার চারদিন নিজেকে চার রকমভাবে দেখতে চান অপু। শাড়ি নয়, চার রকম পোশাকে সাজবেন তিনি।

তবে অপুর ডেইলি ওয়্যার হিসেবে পছন্দ ব্যাগি টিশার্ট এবং ট্রাউজার্স। সঙ্গে স্লিপার্স। কারণ হালকা মেকআপের সঙ্গে হালকা পোশাকেই বেশি কমফোর্টেবল তিনি। আপাতত অপু বেশ ব্যস্ত নিজের নতুন ছবি ‘আজকের শর্টকাট’ নিয়ে।

গায়ক নচিকেতার লেখা এ গল্পে বাংলাদেশের এক নাগরিকের চরিত্রেই অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী। ছবিতে অপু বিশ্বাসের সঙ্গে অভিনয় করেছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, গৌরব চক্রবর্তী, বিশ্বনাথ বসুসহ আরও অনেকে। ছবির পরিচালক সুবীর মণ্ডল। এ ছবিতে অভিনয় করার সুবাদে অনেক কিছু শিখেছেন অপু বিশ্বাস।

একাধিক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, বাংলাদেশের ছবির প্রম্পট অভিনেত্রী তিনি। প্রম্পট শুনে ডায়লগ ডেলিভারি করতে হয়। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের ছবিতে কাজ করে প্রম্পট ছাড়াই ডায়লগ ডেলিভারি করতে হয়েছে তাকে। তাছাড়া এতদিন ১০০-এরও বেশি বাণিজ্যিক ছবিতে কাজ করেছেন। অভিনয়টাও বেশ লাউড করতে হয়েছে।

তাই অন্য ধারার এ ছবিতে অভিনয় করাটা চ্যালেঞ্জের ছিল। পশ্চিমবঙ্গে আরও কাজ করতে চান তিনি। চান দর্শকদের ঘরের মেয়ে হয়ে উঠতে। আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাচ্ছে অপু বিশ্বাসের নতুন ছবি ‘আজকের শর্টকাট’। এর ঠিক এক সপ্তাহ পর বাংলাদেশেও মুক্তি পাবে ছবিটি।

বিডি/ডেস্ক