টিসিবি কার্ডের নামে গরীবদের সাথে উপহাস করছে সরকার -ঠাকুরগাঁওয়ে মির্জা ফখরুল

লেখক: বাংলা ২৪ ভয়েস ডেস্ক
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

যে দেশে জেলা মহিলা আ’লীগের সভানেত্রীর নামে টিসিবির কার্ড হয়, সে দেশে গরীবদের নিয়ে কি ধরনের উপহাস করা হচ্ছে তা সহজেই অনুমেয়। রোল মডেলের এ দেশে এ কিসের আলামত উল্লেখ করে দেশে চলমান টিসিবির কার্ড বিতরণ নিয়ে দলীয়করন এবং অরাজকতা বিষয়ে বক্তব্য দেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। এর আগে সদর উপজেলা বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জেলা বিএনপির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: তৈমুর রহমান।

সম্মেলনে আওয়ামীলীগ সরকারকে ডাকাতের সরকার উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, তাদের আমলে কোন দিনই দেশে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি। উপরন্তু বিগত সময়ে তাদের আমলে বিএনপির সকল পর্যায়ের নেতা কর্মীর নামে হাজারো হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দিয়ে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে। শুধু ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলাতেই সাড়ে ৭ হাজার রাজনৈতিক মামলা দিয়েছে এ সরকার।

জনগণের ভোটের ও ভাতের অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষে নির্বাচনমূখী গণতান্ত্রিক দল বিএনপি কখনই দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবেনা।  বিএনপি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবীতে রাজপথে রয়েছে।

এর আগে বিএনপির সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিষ্টার রুমিন ফারহানা বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বলেন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে বিএনপি ৩শ ৫০ আসনের মধ্যে ৩শ আসনেই জয়লাভ করবে।

বিগত সময়ে দলীয় এবং বিরোধীমত পোষণকারীদের বিরুদ্ধে যত ধরনের হামলা, নির্যাতন, পুলিশি হয়রানি ও মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে সময়মত এর প্রত্যেকটির জবাব নেয়া হবে। গুম এবং খুনের সাথে অভিযুক্ত সরকারী এজেন্সির প্রত্যেক কর্মকর্তাদেরও জবাবদিহিতার আওতায় হবে বলে তিনি হুশিয়ারী দেন। আন্দোলনের মাধ্যমে তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে এনে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা হবে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ এন এম রোকনউদ্দিন ভূঁইয়া’র সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সল আমিন। এসময় জেলা বিএনপি, উপজেলা বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিডি/ডেস্ক