ঠাকুরগাঁওয়ে গাঁজা বিক্রেতা নারীকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশে দিল যুবলীগ নেতা

লেখক: নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

ঠাকুরগাঁওয়ে এক গাঁজা বিক্রেতা নারীকে গাঁজা ও গাঁজা বিক্রির নগদ টাকা সহ আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন এক যুবলীগ নেতা।যুবলীগ নেতার দাবি প্রায় সময় ওই নারী মাদক বিক্রেতা ব্যাগে করে গাঁজা নিয়ে এসে ফেরী করে হাট-বাজারে গাঁজা বিক্রি করতেন। বিষয়টি জানতে পেরে তিনি ওই নারী আটকের উদ্দেশ্যে তার কাছে গাঁজা কেনার জন্য একশত টাকার গাঁজা করতে ওই নারীর নিকট স্থানীয় এক যুবককে পাঠান এবং সামান্য দুরে থেকে তা ভিডিও ধারণ করেন। যখন কেনাবেচা হয়ে যায় তখন তিনি সেই নারী মাদক কারবারিকে চার্জ করেন। পরে ওই নারী তার ব্যাগ থেকে গাঁজার পোটলা ও গাঁজা বিক্রির টাকা জনসম্মুখে বের করেন।

চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার আকচা ইউনিয়নের দেবীগঞ্জ বাজার নামক এলাকায়। আটক নারী মাদক কারবারির নাম মিনা আক্তার। তিনি সদর উপজেলার রুহিয়া থানাধীন বন্দরপাড়া নামক এলাকার বাসিন্দা।

আর কৌশলে মাদক কারবারি আটককারি ব্যক্তির নাম আব্দুর রহমান। তিনি আকচা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করছেন।

মাদক সহ আটকের পর বিষয়টি তিনি সদর থানায় অবগত করলে সদর থানার এসআই খোকা চন্দ্র রায়ের নেতৃত্বে একটি টিস ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারী মাদক কারবারিকে আটক করে থানা হেফাজতে নেন।

যুবলীগ নেতা আব্দুর হমান জানান, এলাকায় বহিরাগত এক নারী মাদক কারবারী এসে বাজারে ও গোপন স্থানে গিয়ে মাদক বিক্রি করে আসছে এমন খবর জানার পর ওই নারীর আসার অপেক্ষা করি। গত বৃহস্পতিবার আমার এক ভাইসতা এসে আমাকে জানায় আমাদের দেবীগঞ্জ বাজারে ওই নারী মাদক বিক্রি করছে। জানতে পেরে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য তাকে একশ টাকা দিয়ে মাদক কেনার জন্য ওই নারীর কাছে পাঠাই এবং একটু আড়াল থেকে তা ভিডিও ধারণ করি। পরে নিশ্চিত হওয়ার পর তাকে চার্জ করলে সে টাকা-পয়সা ও গাঁজার ব্যাগটি বের করে। পরে তাকে পুলিশ হেফাজতে তুলে দেওয়া হয়।

স্থানীয় বাসিন্দারা এ ঘটনার জন্য রহমানকে সাধুবাদ জানান এবং সকলকে মাদকে বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।

ডেস্ক/বিডি

  • গাঁজা বিক্রেতা নারী
  •    

    কপি করলে খবর আছে