ঠাকুরগাঁওয়ে অনুমোদন ছাড়াই বিদ্যালয়ের গাছ কেটে সাবাড়

লেখক: নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: ৩ সপ্তাহ আগে

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার খড়িবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের তিনটি গাছ বন বিভাগের অনুমোদন ও কোন ধরনের টেন্ডার ছাড়াই বিক্রি করে দিয়েছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (০৫ জানুয়ারি) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিষ্ঠানের সামনে থাকা একটি আমগাছ ও দুটি মেহগনি গাছ কেটে ফেলছেন ক্রেতা আতাউর রহমান৷ গাছ কাটলেও দেখাতে পারেননি কোনো অনুমোদন পত্র।

গাছ ক্রেতা আতাউর রহমান বলেন, একটা আম গাছ ও দুটা মেহগনি গাছসহ তিনটা গাছ আমি ৬০,০০০ হাজার টাকায় কিনেছি । তাদের টাকা পরিশোধ করেই আমি গাছ কাটা শুরু করেছি৷

এ বিষয়ে জানতে চাইলে খড়িবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাবিরুল ইসলাম বলেন, গাছগুলোর মালিকানা আমাদের হলেও জমির মালিকানা পানি উন্নয়ন বোর্ডের৷ তারা ক্যানেল খননের কাজ করছে সেজন্য আমাদের গাছগুলো সড়িয়ে ফেলতে বলেছে। আমরা কমিটির সাথে কথা বলে গাছগুলো বিক্রি করে দিয়েছি ৫৭,০০০ হাজার টাকায়। বন বিভাগের কোন অনুমতি নেওয়া হয়নি৷ আর এ বিষয়ে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকেও অবহিত করা হয়নি৷

পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী ভানু প্রসাদ দাস বলেন, ক্যানেল খননের কাজ চলছে। স্রোতের সমস্যা সৃষ্টি করে এমন গাছগুলো সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে।

এ বিষয় বন বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক কর্মকর্তা সোহেল রানা বলেন, আমরা এ বিষয়ে অবগত নই। আমাদের জানানো হয়নি।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তাহের মোঃ শামসুজ্জামান বলেন, কোন টেন্ডার ছাড়াই গাছ গুলো কাটা ঠিক হয়নি। আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

বিডি/ডেস্ক