ঠাকুরগাঁওয়ে জমির বিরোধে ভাতিজার আঘাতে চাচার মৃত্যু! 

লেখক: নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: ১ বছর আগে

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় জমি জমা নিয়ে চাচা ভাতিজার সংঘর্ষে চাচা শাহ আলম  আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার রাতে রংপুর নেওয়ার পথে মৃত্যুবরণ করেছেন।
জানা যায়,  উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের হরিণমারি ( জুগি হার) গ্রামে গত শুক্রবার শাহ আলম ও তার ভাতিজা জমি জমা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়, এক পর্যায় চাচা শাহ আলমের(৭৫) মাথায় আঘাত করে ভাতিজা মানারুল। পরে আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়, উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর হাসপাতালে ভর্তি করালে সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় গতকাল রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান তিনি।
নিহত শাহ আলম এর ছোট ছেলে সোহেল জানান, আমার বাবার কাছে আমার চাচাতো ভাই মানারুল ইসলাম বাড়ির পার্শে  কয়েক শতক জমি দান স্বরূপ রেজিস্ট্রি করে দেন এখন চাচাতো ভাই মানারুল ইসলাম আমাদের বাড়ির সামনে জমি দখলের চেষ্টা করলে এক পর্যায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।এতে করে আমার বাবাকে মাথায় স্বজোরে আঘাত করলে আশংকা জনক অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাই।
গতকাল রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায় আমার বাবা। আমি আমার বাবার হত্যাকারীর বিচার চাই।
আমজানখোর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আকালু বলেন, আমি গত পরশু জমি জমা নিয়ে সংঘর্ষের কথা শুনি এবং তাদের উভয় পক্ষকে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেই। গতকাল রাতে শুনলাম চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহ আলমের মৃত্যু হয় তৎক্ষনাৎ আমি বালিয়াডাঙ্গী থানায় অবগত করেছি। আজকে ওসি সাহেব এবং আমি ঘটনা স্থলে আসলাম আইন অনুযায়ী ওসি সাহেব ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।
বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খায়রুল আনাম ডন বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হবে এবং প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
বিডি/ডেস্ক
  • জমির বিরোধে মৃত্যু
  •  

    কপি করলে খবর আছে