পঞ্চগড়ে স্ত্রীর উপর অভিমান করে নিজের গলায় গুলি চালালেন কনস্টেবল!

লেখক: পঞ্চগড় প্রতিনিধি
প্রকাশ: ৭ মাস আগে

পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীর উপর অভিমান করে পঞ্চগড়ে নিজ গলায় গুলি করে ফিরোজ আহমেদ (২৫) নামে এক পুলিশ সদস্য (কনস্টেবল) আত্মহত্যা করেছে বলে দাবি করেছে পুলিশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) দিনগত রাত ২ টার দিকে পঞ্চগড় জেলা শহরের সোনালী ব্যাংকে ডিউটি থাকা অবস্থায় আত্মহত্যার  ঘটনাটি ঘটেছে। তবে এর বাইরে বিস্তারিত কোন তথ্য প্রকাশ করেনি পুলিশ।

জানা যায়, পুলিশ সদস্য ফিরোজ আহমেদ দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার পলি মির্জাপুর আবতাবগঞ্জ এলাকার পুলিশ সদস্য আবু সাঈদের ছেলে। সে পঞ্চগড়ের পুলিশ লাইনে কর্মরত ছিলেন। গত এক বছর আগে চাকুরির কারণে পঞ্চগড়ে যোগদান করে ফিরোজ। মৃত ফিরোজের মৃতদেহ সুরতহাল ও ময়নাতদন্তের পর পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক ডা. সাইদতুল ইসলাম ফয়সাল বলেন, গুলিবৃদ্ধ মৃত অবস্থায় পুলিশ সদস্যরা ফিরোজকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। মৃতের গলায় গর্ত, কান মুখ দিয়ে অনবরত রক্ত বের হয়। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে বুলেট দিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে তার মৃত্যু হতে পারে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে বিস্তারিত জানা যাবে।

পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস) কনক কুমার দাস বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি পারিবারিক কলহের জেরে এই আত্মহত্যা ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। পুলিশের একটি বিশেষ টিম এসে এটি তদন্ত করে দেখবেন। এই মুহূর্তে এর বাইরে তেমন কিছু বলা যাচ্ছে না।

ডেস্ক/বিডি

  • নিজের গলায় গুলি চালালেন কনস্টেবল
  •