বালিয়াডাঙ্গীতে অবৈধভাবে রাস্তার ঔষধি গাছ কর্তন; আটকের পর ইউনিয়ন পরিষদে জমা!

লেখক: মজিবর রহমান শেখ, ঠাকুরগাঁও
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার পাড়িয়া ইউনিয়নে সরকারিভাবে উত্তরপাড়িয়া শালডাঙ্গা রাস্তার ৫ কিলোমিটার বিভিন্ন প্রজাতির গাছ (ঔষধি গাছ বাদে) বৈধভাবে কাটার টেন্ডার হয়েছে । এরমধ্যে গত ৬ এপ্রিল, বৃহস্পতিবার দুপুরে অবৈধভাবে ৩টি ঔষধি গাছ কেটে ফেলে গাছের ঠিকাদার ও কমিটির লোকেরা। পরে তা স্থানীয়রা আটকে দিলে পাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদে জমা করা হয়। 

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, শালডাঙ্গা রাস্তার গাছ লাগা কমিটির সভাপতি নীরেন চন্দ্র ও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বন বিভাগ অফিসের অনিল চন্দ্র এবং গাছ টেন্ডারের ঠিকাদার বাবুল হোসেন মিলে গোপনে এ গাছ তিনটি গায়েব করতে চেয়েছিলো। এসময় স্থানীয়রা বিষয়টি আঁচ করতে পেরে তা আটকে দেন। পরে অবৈধভাবে কাটা গাছ গুলো উদ্ধার করে পাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছে জমা করেন তারা। গাছগুলোর অনুমানিক মূল্য ৪০ হাজার টাকা ।

আরও পড়ুন : স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতার মামলায় কারাগারে সাংবাদিক রহিম শুভ

এছাড়াও গোপনে গাছ কাটার বিষয়টি স্থানীয়রা বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপুল কুমারকে জানিয়ে দেন। ফলে ভেস্তে যায় গোপনে গাছ সড়ানো কার্যকলাপ।

গাছ কাটার বিষয়ে ঠাকুরগাঁও বন বিভাগের রেঞ্জ অফিসার সফিকুল ইসলাম মন্ডলের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ঔষধি গাছ কাটার বিষয়টি শুনেছি। সেগুলো ইউনিয়ন পরিষদে জমা রয়েছে। ঔষধি গাছ কাটা বিষয়ে যারা জড়িত তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ডেস্ক/বিডি/মজিবর

  • অবৈধভাবে রাস্তার ঔষধি গাছ কর্তন
  •    

    কপি করলে খবর আছে