স্কুলে ভর্তির টাকা না দিতে পারায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

লেখক: শরীয়তপুর থেকে
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

৩ মাস পেরিয়ে গেলেও স্কুলে ভর্তির টাকা না দিতে পারায় বাবার উপর অভিমান করে অনিমা সুরাইয়া (১৪) এক শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

বুধবার (৬ এপ্রিল) সকাল ১১টায় শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার কুচাইপট্টি ইউনিয়নে কুলচুরি পাতারচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অনিমা সুরাইয়া ঐ গ্রামের আলমগীর হোসেন মোল্লার (৪৫) মেয়ে। অনিমা চর মাইজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, বছরের প্রথমে স্কুলে ভর্তি হতে পারেনি অনিমা সুরাইয়া। টাকা আজ দেব কাল দেব বলে সময় পার করছিল। বুধবার সকালে স্কুলে যাওয়ার আগে বাবার কাছে স্কুলের ভর্তির জন্য দুই শ টাকা দাবি করে। তার বাবা টাকা দিতে না পারায় অভিমানে তার নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। ঘরে কোনো সারা শব্দ না পাওয়ার পর তার বাবা রুমের দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে দেখতে পায় সুরাইয়া গলায় ওড়না দিয়ে ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছে।

সুরাইয়ার বাবা আলমগীর হোসেন মোল্লা বলেন, মাত্র দুই শ টাকার জন্য আমার মেয়েটা আমার সঙ্গে অভিমান করেছে। সে অভিমানে আত্মহত্যা করেছে। আমি ভাবতেও পারিনি এতোটা রাগ আমার ওপর ওর।

গোসাইরহাট থানার এসআই শহিদুল ইসলাম বলেন, স্কুলে ভর্তির টাকা না দেওয়ায় বাবার সঙ্গে অভিমান করে সুরাইয়া নামের অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা করে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ডেস্ক/বিডি