স্মার্ট ফোন না পেয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে বিষপানে মাদ্রাসা ছাত্রীর আত্মহত্যা!

লেখক: কুদরত আলী, ঠাকুরগাঁও
প্রকাশ: ১ বছর আগে

স্মার্ট ফোন না পেয়ে ঠাকুরগাঁওয়ের রুহিয়া থানাধীন ২নং আখানগর ইউনিয়নে বিষপানে আশা মনি(১৭) নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে। আজ মঙ্গলবার ভোর রাতে রংপুর নেওয়ার পথে সে মারা যায়। এর আগে গতকাল সোমবার (১৫ মে) দিবাগত রাত ১১টার দিকে বিষপান করে ওই শিক্ষার্থী। নিহত আশা মনিসদর উপজেলার রহিমানপুর আলিম মাদ্রাসার দ্বিতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী ও আখানগর ইউনিয়নের ডাঙা পাড়া নামক এলকার মনসুর আলীর মেয়ে। 

বিষপানে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রুহিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: সোহেল রানা।

আরও পড়ুন : ঠাকুরগাঁওয়ে যুবলীগ নেতাকে থানা হেফাজতে নির্যাতনের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত শুরু

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গতকাল সোমবার (১৫ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে আশা মনি ও তার ছোট ভাই রাকিবের সাথে একটি স্মার্ট ফোনের কারণে উভয়ের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়, এক পর্যায়ে রাগকে নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে আশা মনি বাসায় সংরক্ষিত বিষ (কীটনাশক) পান করে। পরে পরিবারের লোকজন বুঝতে পেরে তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় প্রথমে ঠাকুরগাঁও ২৫০ বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে চিকিৎসকের পরামর্শে ভোর রাতে রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নেয়ার পথে ঠাকুরগাঁওয়ের জগন্নাথপুর এলাকায় সে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে।

রুহিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবু হানিফ মণ্ডল বলেন, স্মার্টফোন কিনে না দেওয়ায় অভিমানে ওই তরুণী আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করছি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা রুজু হয়েছে।

ডেস্ক/বিডি/কুদরত

  • বিষপান
  • মাদ্রাসা ছাত্রী
  • স্মার্ট ফোন
  •    

    কপি করলে খবর আছে