হরিপুরে জমি রেজিষ্ট্রি না দেওয়ায় পিটিয়ে বাবার মাথা ফাঁটালো ছেলে !

লেখক: নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: ১ বছর আগে
প্রতিকি

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে মায়ের নামে থাকা জমি ছেলের নামে রেজিষ্ট্রি না দেওয়ার কারণে বাশেঁর লাঠি দিয়ে বাবার মাথায় আঘাত করে গুরুতর জখম করেছে নিজের বড় ছেলে আজগর আলী।
ঘটনাটি ঘটেছে হরিপুর উপজেলার হরিপুর সদর ইউনিয়নের দেহট্ট গ্রামে। এ বিষয়ে বাবা বাদী হয়ে নিজ ছেলের নামে হরিপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, হরিপুর উপজেলার হরিপুর সদর ইউনিয়নের দেহট্ট গ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রী আজেমার নামে থাকা জমি বড় ছেলে আজগর আলী (৩৮) তার নিজ নামে রেজিষ্টৈ করে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন সময় বাবা ও মাকে হুমকি দিয়ে আসছিলো। কিন্তু বাবা ও মা তাদের নামে থাকা জমি রেজিষ্ট্রি দিতে অস্বীকার করে। জমি রেজিষ্ট্রি না দেওয়ার কারণে গত মঙ্গলবার (২আগস্ট) দিবাগত রাত আনুমানিক ১২ টার দিকে বড় ছেলে আজগর আলীর সাথে বাবা নজরুল ইসলাম ও মা আজেমার সাথে কথাকাটাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে ছেলে আজগর আলী রাগান্বিত হয়ে বাঁশের লাঠি দিয়ে বাবার মাথায় আঘাত করলে তার মাথা ফেটে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এসময় তার স্ত্রী আজমেরা চিৎকার করলে তার ছোট ছেলে ও পুত্রবধু বাবাকে রক্ষা করার জন্য আসলে আজগ‍র আলী তাদেরকেও এলোপাথারী মারপিট করে আহত করেন। পরে এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
চিকিৎসা শেষে ছেলে আজগর আলীসহ ছয় জনকে আসামী করে হরিপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন বাবা নজরুল ইসলাম।
বাবা নজরুল ইসলাম বলেন, আমি কখনোই ভাবিনি আমার নিজ সন্তান আমাকে মেরে আমার মাথা ফাটাবে। আমার মাথায় চারটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। আমি এমন কুলাঙ্গার সন্তানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।
হরিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম এর কাছে অভিযোগের বিষয়টি মুঠোফোনে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, বিষয়টি তদন্তাধীন।তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
বিডি/ইতি
  • পিটিয়ে বাবার মাথা ফাঁটালো ছেলে
  •