হরিপুরে পশুর হাটে অতিরিক্ত টোল আদায়ের অভিযোগে ১ লক্ষ টাকা অর্থ দন্ড 

লেখক: বাংলা ২৪ ভয়েস ডেস্ক
প্রকাশ: ৩ সপ্তাহ আগে

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী যাদুরানি পশুর হাটে অতিরিক্ত টোল আদায়ের অভিযোগ উঠে।অভিযোগের প্রেক্ষিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও  হরিপুর উপজেলা ভূমি কমিশনার হাটে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় হাট ইজারাদারকে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করে সর্তক করেন বলে জানা গেছে।
যাদুরানী হাটে টোল আদায়ের মূল্য তালিকা টাঙানো বাধ্যতামূলক থাকলেও হাটে কোথাও মূল্য তালিকা টাঙানো হয়নি। ৪ জুন মঙ্গলবার দুপুর ১২টার সময়  যাদুরানি পশু হাটে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গরু প্রতি ২৩০ টাকা হারে টোল আদায় করার নিয়ম থাকলেও হাট ইজারাদার তার খুশিমতো নিচ্ছে ৫০০ টাকা এবং ছাগলের ৯০ টাকা নেওয়ার নিয়ম থাকলেও নেওয়া হচ্ছিল ১৮০ টাকা।
দহগাও গ্রামের শরিফুল ইসলাম বলেন, আমি গরু ক্রয় করেছি এবং আমার নিকট ৫০০ টাকা নিয়েছে ও শিংহাড়ী গ্রামের মজিবর বলেন, আমি একটা ছাগল ক্রয় করেছি আমার নিকট ১৮০ টাকা নিলো। প্রতিবাদ করলাম, কিছু করতে পারি নাই।
ভুক্তভোগীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পশু কেনা-বেচার যাদুরানি হাটে অতিরিক্ত টাকা নেওয়া হচ্ছে, এ-কারণে সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হচ্ছে।
ইতিপূর্বে বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়া ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া অতিরিক্ত হাসিল বা টোল আদায় বিষয়ে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার কারণে  ৪ জুন মঙ্গলবার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও হরিপুর  উপজেলা ভূমি কমিশনার  অতিরিক্ত টোল বা হাসিলা আদায় করার অভিযোগে যাদুরানী হাটে অভিযান চালায় এবং এ সময় শত শত গরু ক্রেতাগণ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এর নিকট অভিযোগ তুলে ধরেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও  হরিপুর উপজেলা ভূমি কমিশনার , ভ্রাম্যমাণ আদালত আইন অনুযায়ী হাট ইজারাদারকে অতিরিক্ত হাসিল বা টোল আদায় এর কারণে ১ লক্ষ টাকা অর্থ দন্ড করে এবং হাটের মূল্য তালিকা টাঙানো নির্দেশ প্রদান করে সতর্ক করেন।
অতিরিক্ত হাসিল বা টোল আদায় বিষয়ে হাট ইজারাদারকে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
প্রসঙ্গত, গত বছর অতিরিক্ত হাসিল বা টোল আদায় করার কারণে ৩০ হাজার টাকা অর্থ দন্ড করা হলেও থেমে নেই অতিরিক্ত হাসিল বা টোল আদায়।
ডেস্ক/বিডি/শেখ
  • অতিরিক্ত টোল আদায়ের অভিযোগ
  • পশুর হাট
  •    

    কপি করলে খবর আছে