২ বছর পর এবার নামাজ আদায় হবে ঠাকুরগাঁও বড়মাঠ ঈদগাহ মাঠে

লেখক: নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: ৯ মাস আগে

করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ ২ বছর পর সারাদেশের মতো ঠাকুরগাঁওয়ের জেলা স্কুল (বড়মাঠ) ঈদগাহ মাঠে পবিত্র ঈদুল ফিতরের ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে ঈদের জামাত আদায়ের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। পাড়া-মহল্লার ঈদগাহ মাঠের প্রবেশমুখে নির্মাণ করা হচ্ছে বর্ণিল গেট। কোথাও কোথাও সড়কের পাশে নির্মাণ করা হচ্ছে ছোট ছোট মঞ্চ।

এবার ঠাকুরগাঁওয়ে ঈদের প্রধান জামাত জেলা স্কুল বড় মাঠ ঈদগাহ ময়দানে সকাল সাড়ে ৮:৩০টায় অনুষ্ঠিত হবে। এতে ইমামতি করবেন সালন্দর ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আবুল হাসান ত্ব-হা ।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন ঠাকুরগাঁও জেলার উপ-পরিচালক মো. মশিউর রহমান নিশ্চিত করে জানান, ঠাকুরগাঁও ঈদের প্রধান জামাত সাড়ে ৮:৩০টায় জেলা স্কুল বড় মাঠ ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হবে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ঠাকুরগাঁও প্রধান ঈদগাহ মাঠ জেলায় স্কুল বড় মাঠ ঈদগাহ ময়দান সাজানো হচ্ছে। ইতিমধ্যে প্রবেশ গেট নির্মাণ করা হয়েছে। ময়দানের ভিতরে সামিয়ানা তৈরিও শেষ। এ ঈদগাহ ময়দানে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার প্রায় ৮ হাজার মুসল্লি ঈদ জামাতে অংশ নেবেন বলে জানা গেছে।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, ঈদের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৮:৩০টায় অনুষ্ঠিত হবে। তবে আবহাওয়া খারাপ থাকলে কিংবা বৃষ্টি হলে সকাল ৯টায় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে।

এ ছাড়াও ঠাকুরগাঁও ঈদগাহ মাঠসহ শহরের ৩০০ টির বেশি মাঠে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। বেশিরভাগ এলাকার ঈদ গাহ মাঠে সকাল ৮:৩০টা থেকে সকাল ৯:৩০টার ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে পূর্ব ঐতিহ্য হিসেবে পৌরমেয়র ঈদের জামাত শেষে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করে আসলেও নারী মেয়র হওয়ায় এবার ভিন্নতা রূপ নিয়েছে।

ঠাকুরগাঁওবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে পৌরমেয়র আঞ্জুমান আরা বন্যা বলেন, করোনা মহামারির সংকট কাটিয়ে ২ বছর পর এবার সারাদেশের মতো ঠাকুরগাঁওয়ে ঈদের জামাত ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। ঠাকুরগাঁওয়ে প্রধান ঈদগাহ ময়দানের সাজসজ্জার কাজ শেষ। মুসল্লিরা যাতে সুষ্ঠুভাবে জামাতে নামাজ আদায় করতে পারেন সে বিষয়ে সকল প্রকার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

জেলা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কয়েক স্তরের নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তাবলয় তৈরি করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ঠাকুরগাঁও জেলায় এই ঈদ উৎসবকে নির্বিঘ্ন করতে পুলিশের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

বিডি/হাসান